ইসলামিক স্টেইট-এর শাসন (রাক্কাহ, আল-বাব ইত্যাদি অঞ্চলে)

খিলাফাহ পুনঃপ্রতিষ্ঠার আগে প্রকাশিত)

সারাংশঃ

(১) এখানে বলা হচ্ছে খিলাফত ধ্বংস এবং মানবরচিত আইনের জায়গায় শারী’য়াহ আইন প্রতিস্থাপনের বিষয়টি।
(২) এখানে বলা হচ্ছে যারা শারী’য়াহ পুনঃস্থাপনের প্রচেষ্টা চালাচ্ছে
(৩) এখানে বলা হচ্ছে ইসলামিক স্টেইট সম্পর্কে, যারা ইসলামিক আদালতের সূচনা করেছে লোকেদের মধ্যে বিচার-ফায়সালা করার জন্য।


——————————————-

(৪) শারী’য়াহ অফিসের দায়িত্বশীল একজনের সাক্ষাৎকারঃ

“এটাই যথেষ্ট প্রমান যে ইসলামিক স্টেইট শারী’য়াহ প্রতিষ্ঠা করতে চায়, ‘করতে চায়’ বলতে আমি বুঝিয়েছি শারী’য়াহ বাস্তবায়নের জন্য সর্বোচ্চ মেহনত করছে। কেননা, প্রতিটি ক্ষুদ্র অঞ্চলও যা তারা নিয়ন্ত্রন করে তারা তাতে শারী’য়াহ বাস্তবায়ন করছে, কুৎসারটনাকারীদের অপবাদকে পাত্তা না দিয়েই। “


—————————————————–

(৫) একজন বাসিন্দার সাক্ষাৎকারঃ

“আমি একটি সমস্যায় পড়েছিলাম যখন দাওলাহ’র কিছু ভাই আমাকে আক্রমণ করেছিল, তাই আমি ইসলামিক আদালতের কাযীর দরবারে অভিযোগ করি; কাযী ক্বিসাসের হুকুম দেয় এবং তাদের উপর তাই করা হয় যা তারা আমার সাথে করেছিল। “

“সুতরাং আমার অধিকার সমুন্নত করা হয়েছিল, এখানকার (ইসলামিক স্টেইট) ভাইয়েরা খুবই ভাল। এবং আপনি এমনকি একজন লীডার-এর (ইসলামিক স্টেইট) কাছ থেকেও নিজের অধিকারসমূহ বুঝে পাবেন। অথচ আসাদের সময়কালের কথা মনে করুন যখন একজন ট্রাফিক পুলিশের বিরুদ্ধেও অভিযোগ করবার কোন অবকাশই ছিল না, আপনাকে এরেস্ট করে ফেলা হতো।”

(৬) ব্যক্তিগত বিষয়াদি নিয়ে রাক্কাহ-তে একজন কাযী’র সাক্ষাৎকার [কোন ছবি নেই, তবে সাক্ষাৎকারটি ৩:৫৩ মিনিট থেকে শুরু হয়েছে]

“আমরা আপনার ব্যক্তিগত বিষয়ে রাক্কাহ’তে আপনারই ভাই, এই প্রদেশটি আল্লাহ’র ইচ্ছায় ইসলাম বহির্ভূত মানবরচিত এবং গোত্রীয় কালাকানুন থেকে মুক্তি পেয়েছে। আমরা নারী-পুরুষ-শিশু যাদের হারাবার হারিয়েছি, এইসবই ছিল আল্লাহ’র আইন বাস্তবায়নের জন্য।”

“এই (আল্লাহ’র আইন) আমাদের সম্মানিত করেছে, অফিসে এই হল আমাদের কাজ। ব্যক্তিগত বিষয়াদি দেখাশুনা করবার বিভাগে আমরা তালাক্ব ও উত্তরাধিকার সংক্রান্ত ইস্যুগুলো ফায়সালা করি। “

“আমরা তালেবে ‘ইলমদের আহ্বান জানাই, এইখানে আসুন এবং ইসলামিক আদালতকে সহায়তা করুন। যখন আমরা গ্রাজ্যুয়েশান সম্পন্ন করেছিলাম ইসলাম বাস্তবায়নের কথা শুধু থিউরীতেই শুনেছি, কিন্তু আল’হামদুলিল্লাহ আমরা এখন তার বাস্তবায়ন স্বচক্ষে দেখতে পাচ্ছি।”


————————————–

(৭) মাসজিদের একজন ইমাম এবং দা’য়ীহ-এর সাক্ষাৎকারঃ

“আমি কথা বলছি মাসজিদের একজন দা’য়ীহ, একজন প্রচারক হিসেবে, চারদিকে ইসলামের বহিঃপ্রকাশ দেখে আমরা অত্যন্ত খুশি, যেমন ধরুন রাস্তা-ঘাটে, খোলা প্রান্তরে সালাত আদায় হচ্ছে, আপনি সর্বত্রই তা দেখতে পাবেন।”


—————————————————————————

“এবং নিক্বাব পড়বার বিষয়টিও, যার বিরুদ্ধে স্কুলে এমনকি যুদ্ধ ঘোষনা করা হয়েছিল! আমরা যতই মাসজিদে এই বিষয়ে প্রচার ও সতর্ক করি না কেন, আমরা যা করতে পারিনি ইসলামিক স্টেইট তা অর্জন করে দেখিয়েছে অতি স্বল্প সময়ে। যেমনটা বলা হয়েছে “আল্লাহ তা সুলতান(শাসক)-কে দিয়ে পরিবর্তন করেন, যা তিনি ক্বুর’আন দিয়েও করেন না” এবং এটি হল ইসলামিক স্টেইট-এর অনেকগুলো সাফল্যের একটি।“
“ইসলামিক স্টেইট আসার আগে এখানে ছিল অরাজকতা, হত্যা এবং চুরি-চামারি; কিন্তু যখন চোরের হাত কাটার মতো হুদুদ বাস্তবায়ন শুরু হলো – এই অপরাধগুলো কমে আসল। মিষ্টি কথা ব্যতিরকে এটাই হচ্ছে বাস্তবতা।”
“এটা একটা গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু যাতে সকল মুসলিমদের সহায়তা দরকার, ইসলামিক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা কেবল সিরিয়ানদের জন্য নয় বরং দুনিয়ার সব মুসলিমদের জন্যই; এবং যারা ইসলামি আদালতে বিচারে অভিজ্ঞ আমি তাদের আহ্বান করছি এখানে চলে আসবার জন্য। এইখানে আদালতে কাযী স্বল্পতার কারনে বিচার প্রার্থীদের ভীড় জমে আছে।”

———————————————-

(৮) [৮:৩৫ মিনিট] দেখা যাচ্ছে একজনকে মদপানের অপরাধে চাবুক মারা হচ্ছে।


————————————————-

(৯) [৯:১৩ মিনিট] অভিযোগ সংক্রান্ত ব্যাপারে প্রধান দায়িত্বশীলের সাক্ষাৎকারঃ

“এই অফিসের দায়িত্ব হলো জনগণের অভিযোগ শোনা – যেহেতু আমরা প্রচন্ড চাপের ভেতর আছি এবং প্রচুর অভিযোগ আমাদের মোকাবেলা করতে হচ্ছে, তাই প্রতিটি তালেবে ‘ইলম ও কাযী’র উচিত এখানে ভাইদের সাহায্যে এগিয়ে আসা।”
“এখানে আসুন এবং দেখুন যদি আমরা আল্লাহ’র আইন বাস্তবায়ন না করে থাকি তবে আমাদের বিরুদ্ধে প্রমাণ প্রতিষ্ঠিত করুন।”


——————————————

(১০) একজন বর্

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s